[gtranslate]

সৈয়দপুর-কক্সবাজার রুটে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট চালু হয়েছে। 


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : অক্টোবর ৭, ২০২১, ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ / ১০৮
সৈয়দপুর-কক্সবাজার রুটে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট চালু হয়েছে। 

ছবি সংগৃহীত 

অনলাইন ডেস্ক:

বৃহস্পতিবার দুপুরে রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই ফ্লাইটের উদ্বোধন করেন।

এ উপলক্ষ্যে সৈয়দপুর টার্মিনালে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন দেশবরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও নীলফামারী-২ আসনের সাংসদ আসাদুজ্জামান নূর, নীলফামারী-৪ আসনের সাংসদ আহসান আদেলুর রহমান, সংরক্ষিত আসনের সাংসদ রাবেয়া আলীম, বিমান বাংলাদেশ ব্যবস্থাপনা পর্ষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুল হাসান, বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেন, রংপুর বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল ওয়াহাব ভুঞা, নীলফামারী জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসএম মোক্তারুজ্জামান, রেলমন্ত্রীর সহধর্মিণী শাম্মী আখতার প্রমুখ।

রেলমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে রেল, বিমান, নৌ ও সড়কপথে ব্যাপক উন্নয়ন করা হচ্ছে। এই বিমানবন্দরে সৈয়দপুর থেকে পর্যটন নগরী কক্সবাজারে বিমান চালু হওয়ায় আর পিছিয়ে থাকবে না।

তিনি বলেন, রেলের জায়গা দখল করে ঘরবাড়ি তৈরি করেছেন আবার তারাই নাকি নেতা। এর আগে যারা ক্ষমতায় ছিলেন তারা রেলকে ধ্বংস করে দিয়েছেন, সংকুচিত করেছেন রেলকে। বর্তমান সরকার রেলওয়ে কে সম্প্রসারিত করছে। রেলের জায়গাগুলো একটি ব্যবস্থাপনার আওতায় আনা হচ্ছে।

তিনি উল্লেখ করে বলেন, চট্টগ্রাম-দোহাজারি রেলপথের কাজ শুরু হয়েছে। আগামী ডিসেম্বরে সৈয়দপুর থেকে কক্সবাজারে সরসরি ট্রেন চালানোর ইচ্ছে রয়েছে। আশা করি, প্রধানমন্ত্রীর বৈপ্লবিক পরিবর্তনের সুফল মানুষ পাচ্ছেন।

মন্ত্রী বিএনপি-জামায়াতের সমালোচনা করে বলেন, অপশক্তি বসে নেই। তারা আমাদের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে চায়। ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের প্রতিহত করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর ১০০ বছরের ডেলটা প্রকল্প সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশটা হবে একটি উন্নত দেশ। সেই ধারাবাহিকতায় আমরা টিম ওয়ার্ক নিয়ে কাজ করছি। সড়ক, আকাশ, নৌ ও রেলপথকে আরও গতিশীল করতে গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

বিমান বাংলাদেশ ব্যবস্থাপনা পর্ষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুল হাসান বলেন, সপ্তাহে বৃহস্পতিবার সৈয়দপুর থেকে এবং শনিবার কক্সবাজার বিমানের ফ্লাইট চলাচল করবে। পরে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে বিমান চলাচলের উদ্বোধন করেন।