[gtranslate]

লক্ষীপাশায় মোল্লা সুইটস্ চড়া দামে মিষ্টি বিক্রির অভিযোগের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিক হামলার শিকার।


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : এপ্রিল ২২, ২০২৩, ৯:২৯ পূর্বাহ্ণ / ২১
লক্ষীপাশায় মোল্লা সুইটস্ চড়া দামে মিষ্টি বিক্রির অভিযোগের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিক হামলার শিকার।

মোঃ: মাহাফুজুর রহমাম, জেলা প্রতিনিধি।

নড়াইলের লোহাগড়ার লক্ষীপাশা চৌরাস্তায় মোল্লা সুইটস্ এর প্রোপাইটার মনিরুজ্জামান তিনি অতিরিক্ত দামে মিষ্টি বিক্রি করছে, তার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাস হামলার শিকার হয়, এবং মোবাইল ও সোনার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে, ২১ এপ্রিল রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে এঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে, ঘটনা স্থান থেকে লোহাগড়া পুলিশ ছিনতাই কারী মিষ্টি ব্যবসায়ীর কাছ থেকে মোবাইল টি উদ্ধার করে সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাসের কাছে ফেরত দেয়। কিন্তু ১২ আনা ওজনের ১ টি সোনার চেইন ফেরত পাওয়া যায়নী বলে জানান সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাস। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মিষ্টি ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান তার মিষ্টির দোকানে ছিলেন তখন সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাস মিষ্টি ক্রেতাদের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই দোকানে গিয়ে মিষ্টির দাম জিজ্ঞাসা করে এবং তার মোবাইল ফোন দিয়ে ভিডিও করতে গেলে মিষ্টি ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান সহ তার সাথে থাকা আরো ২/৩ জন ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাসের উপর হামলা করে তাকে গুরুতর আহত করে মোবাইল ফোন ও সোনার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়।  সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাস বলেন পাশের অন্যান্য মিষ্টি দোকানে কেজি দরে ৩০/৪০ টাকা কম দামে মিষ্টি বিক্রি হচ্ছে আর মোল্লা সুইটস্ কে বেশি দামে মিষ্টি বিক্রি করছেন সেটা জানতে চাইলে মিষ্টি ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান ভিডিও না করার জন্য হাত উঠিয়ে থাবা দিয়ে মোবাইল ফোন টি ছিনিয়ে নিয়ে যায়, পরবর্তীতে স্থানীয় একজন থেকে মোবাইল ফোন টি সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাস কে ফেরত দেয়।  পুনরায় সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাস মিষ্টি দোকানের ভিডিও করতে গেলে মিষ্টি ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান সহ আরো ২/৩ জন মিলে সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাসের উপর হামলা চালিয়ে আহত করে মোবাইল ফোন ও সোনার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়।  এসময় লোহাগড়া থানা পুলিশের এসআই বাচ্চু ঘটনা স্থানে এসে ওই দোকানদারের কাছ থেকে মোবাইল ফোন টি উদ্ধার করে সাংবাদিক আজিজুর বিশ্বাস কে ফেরত দেয়, এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  এঘটনায় সাংবাদিক সমাজ এহেন নেককারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ সহ প্রশাসনের কাছে বিচারের জোর দাবি জানান। এবিষয়ে লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোঃ নাসির উদ্দীন এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন ঘটনা শুনেছি অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।