[gtranslate]

মিঠাপুকুরে গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার ঘটনায় মিঠাপুকুরে স্বামীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৩


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১৫, ২০২৩, ১:২৪ অপরাহ্ণ / ২৩
মিঠাপুকুরে গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার ঘটনায় মিঠাপুকুরে  স্বামীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৩

হীমেল কুমার মিত্র, স্টাফ রিপোর্টার 

রংপুরের মিঠাপুকুরে গৃহবধূ শিমু বেগমকে (২০) শ্বাসরোধ করে হত্যার ঘটনায় স্বামী দুলাল মিয়াকে (২৪) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ওই গৃহবধূকে গলাটিপে হত্যার পর মুখে বিষ ঢেলে আত্মহত্যা বলে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। (১৪ এপ্রিল) শুক্রবার রাতে জামালপুরের বকশিগঞ্জ থেকে দুলালকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি মিঠাপুকুর উপজেলার দুর্গাপুর রশনিপাড়া গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে। আজ (১৫ এপ্রিল) শনিবার দুপুরে রংপুর র‌্যাব-১৩ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মাহমুদ বশির আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। র‌্যাব-১৩ জানায়, দেড় বছর আগে মিঠাপুকুর উপজেলার দুর্গাপুর রশনিপাড়া গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়ার সঙ্গে শিমু বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় যৌতুক বাবদ একটি মোটরসাইকেল, ঘরের আসবাবপত্র এবং নগদ দুই লাখ টাকাও দেয় শিমুর পরিবার।এরপরেও শিমুর স্বামী আরও ১ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করে আসছিলেন। শিমুর পরিবার তা দিতে না পারায় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ চলছিল। এরই মধ্যে গত ৭ মার্চ শিমু বেগমকে তার স্বামী দুলাল মিয়া, শ্বশুড় বাবলু মিয়া এবং শ্বাশুড়ী দুলালী বেগম মিলে মারধরের একপর্যায়ে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে এ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে শিমুর মুখে বিষ দিয়ে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করে দুলালের পরিবারের লোকজন। র‍্যাব-১৩ কর্মকর্তা মাহমুদ বশির আহমেদ জানান, এ ঘটনায় শিমুর বাবা বাদী হয়ে মিঠাপুকুর থানায় হত্যা মামলা করলে বিষয়টি ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। গোয়েন্দা নজরদারির ভিত্তিতে দুলাল মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। অন্যদের গ্রেফতারে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন দুলাল। তাকে থানায় পাঠানো হয়েছে।