[gtranslate]

বিএমএসএফ এর শাখা কমিটির উদ্দেশ্যে কিছু কথা


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ৩১, ২০২৩, ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ / ২০
বিএমএসএফ এর শাখা কমিটির উদ্দেশ্যে কিছু কথা

প্রিয় সহযোদ্ধা, সংগ্রামী সালাম,শুভেচ্ছা, শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা গ্রহন করুন। বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম-বিএমএসএফ সারাদেশের সাংবাদিকদের স্বার্থরক্ষার একটি জাতীয় নেটওয়ার্ক। ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে সংগঠনটি ১৪ দফা দাবি নিয়ে সাংবাদিকদের অধিকার,মর্যাদা ও স্বার্থরক্ষার পক্ষে কাজ করে যাচ্ছে। যারা ১৪ দফায় বিশ্বাস করে তারা আজো সেরা হয়ে বেঁচে আছেন। যারা বিভিন্ন সময়ে সংগঠন এবং সাংবাদিকদের স্বার্থবিরোধী পথে হেটে বিপথে গেছেন তারা হারিয়ে গেছেন। নানা ষড়যন্ত্র, বিদ্রোহের মধ্যে যে সকল সাংবাদিক বন্ধুরা এখনো টিকে আছেন তারাই বিএমএসএফ-এর প্রকৃত যোদ্ধা, কমরেড।

আপনারা অনেকেই আমাকে ও বিএমএসএফকে চেনেন এবং জানেন। একটি চক্র আমাকে এবং বিএমএসএফকে ঘিরে বিভিন্ন সময়ে নানা ব্যর্থ ষড়যন্ত্র করেছিল; এটা যুগযুগ ধরে হবে। সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে সাংবাদিকদের স্বার্থরক্ষায় ১৪ দফার পতাকা নিয়ে যেতে হবে দূর-বহুদূর…

আমি আপনাদের উদ্দেশ্যে আবারও জানাতে চাই – বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম – বিএমএসএফ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইন মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধন অধিদপ্তরের আওতায় ট্রাস্ট আইনে নিবন্ধিত (নং ০৬/২০২২) একটি জাতীয় সংগঠন। এছাড়া ফোরামের গঠনতন্ত্র এবং লোগো সরকারের কপিরাইট অধিদপ্তর থেকে কপিরাইটকৃত। অতএব যে কেউ বিএমএসএফ কে নিয়ে ছিনিমিনি খেলার দিন বহু আগেই শেষ হয়ে গেছে; কেননা-বিএমএসএফ সব মিলিয়ে এখন নিবন্ধিত এবং কপিরাইটকৃত সংগঠন। 

আপনারা জানেন, সংগঠন এবং সাংবাদিকদের স্বার্থ বিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে গত ১০ বছরে জমাটবাঁধা আগাছা জাতীয় কিছু রাক্ষুসে সদস্যকে বহিষ্কার করে কতিপয় দূস্কৃতকারীদের বিরুদ্ধে কপিরাইট আইনে মামলা করা হয়েছে (যা ঢাকা জজ আদালতে বিচারাধীন)। তারা এবং তাদের দোসররা সংগঠনের সাফল্যে ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার ও সংগঠনের বিরুদ্ধে নানা ব্যর্থ ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। ঐ সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে বর্তমানে অত্র সংগঠন ট্রাস্টি বোর্ডের আওতায় জাতীয় পরিষদের মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। 

আমরা আশা করি, আপনারা যারা বিএমএসএফের সাথে আছেন তারা সর্বদা সজাগ থাকবেন এবং ষড়যন্ত্রকারী রাক্ষুসে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকবেন। শাখা সমুহের নেতৃবৃন্দ আপনারা আগামী ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ তারিখের মধ্যে আপনার এলাকার মেয়াদোত্তীর্ণ কিংবা ইনএকটিভ শাখা ছাড়াও নতুন কমিটি গঠণ/পূনর্গঠণের জন্য বিশেষ আহবান জানানো যাচ্ছে। একই সাথে ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ বিকাল ৫.০০ ঘটিকার মধ্যে শাখা সভাপতি/সম্পাদককে কমিটির হালনাগাদ তথ্য (সদস্য সংখ্যা, মালামালের তালিকা,বিবিধ) ট্রাস্টিবোর্ডের নিকট লিখিত ভাবে জানানোর জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা যাচ্ছে। লিখিত তথ্য জানাতে ব্যর্থতায় ঐ সকল শাখা কমিটি শুন্য ঘোষণা করে নতুন কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। 

আপনারা জানেন, ডিসেম্বর এবং জানুয়ারি সাংগঠনিক সেবা মাস সম্পন্ন হয়েছে। সেবা মাসের স্বার্থে যারা কাজ করেছেন তাদের প্রতি বিপ্লবী সালাম। 

মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের সকল ভালো কাজে সাহায্য করুন, আমিন।

আমরা আপনার/আপনাদের সুস্বাস্থ্য এবং সার্বিক মঙ্গল ও সাফল্য কামনা করছি।

জয়বাংলা

ইতি, আপনাদের নিত্য শুভার্থী

আহমেদ আবু জাফর

প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান 

ট্রাস্টি বোর্ড

এবং প্রধান সমন্বয়কারী

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম –

বিএমএসএফ

জাতীয় পরিষদ

০১৭১২৩০৬৫০১

৩০ জানুয়ারি ২০২৩ খ্রী:।

বি:দ্র: সম্মানিত সকল সদস্য, সকল শাখা সমুহের অবগতির জন্য আপনিও পোস্ট /শেয়ার করতে পারেন।