[gtranslate]

পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা কি যুদ্ধে প্রভাব ফেলবে?


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : মার্চ ১৯, ২০২৩, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ / ২৩
পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা কি যুদ্ধে প্রভাব ফেলবে?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  যুদ্ধাপরাধের দায়ে কি তবে বিচারের কাঁঠগড়ায় দাঁড়াবেন বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন? বিশ্ব রাজনৈতিক অঙ্গনে এখন ঘুরপাক খাচ্ছে এ প্রশ্ন। বিশ্লেষকরা বলছেন, রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক পরিস্থিতির পরিবর্তন না হলে ইউক্রেন যুদ্ধে রুশ প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির কোনো প্রভাব পড়বে না। বিবাদীর অনুপস্থিতিতে আইসিসি কোনো ট্রায়াল পরিচালনা করে না। বিচার হতে হলে রাশিয়ার বাইরে পুতিনকে গ্রেফতার করতে হবে, আপাতত যার কোনো সম্ভাবনা নেই। এ অবস্থায় আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরাও সুর মিলিয়ে বলছেন, এ পরোয়ানা কার্যকর করা কার্যত অসম্ভব। গণহত্যা, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও যুদ্ধাপরাধের মতো অপরাধের বিচার করতে গঠিত আইসিসি বিশ্বব্যাপী বিচারকাজ পরিচালনা করে থাকে। তবে আদালত গঠন করতে যেসব দেশ চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল, শুধুমাত্র সেসব দেশেই তারা প্রয়োগ করতে পারে বিচারিক ক্ষমতা। ১২৩টি দেশ চুক্তির মাধ্যমে এই আদালতকে স্বীকৃতি দিলেও এর আওতায় নেই যুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া।  অনেক আইন বিশেষজ্ঞ মনে করছেন, আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের এই সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে মূলত রাশিয়ার মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে কঠোর একটি বার্তা দেয়া হয়েছে। তবে আইসিসি বলছে, যুদ্ধাপরাধের জন্য পুতিনকে জবাবদিহিতার আওতায় আনার মতো যথেষ্ট যুক্তি তাদের আছে। রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক পরিস্থিতির পরিবর্তন না হলে চলমান ইউক্রেন যুদ্ধে এ পরোয়ানার কোনো প্রভাব পড়বে না উল্লেখ করে বিশ্লেষকরা বলছেন, দেশটিতে পুতিনবিরোধী রাজনৈতিক শক্তির শাসনব্যবস্থায় আসার আপাতত কোনো সম্ভাবনাও নেই। আইসিসির পদক্ষেপের পর রাশিয়ার ক্ষমতায় পুতিন আরও বেশি পাকাপোক্ত হবেন বলেই ধারণা করা হচ্ছে।  এর আগে, জাতিসংঘ মনোনীত তদন্ত দল রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ আনলে শুক্রবার (১৭ মার্চ) পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আইসিসি।

(মোঃ আঃ রহিম সিনিয়র বিশেষ প্রতিনিধি)