[gtranslate]

পলাশবাড়ীতে ইউপি’ রাস্তার গাছ গোপনে নিলাম দেখিয়ে নামমাত্র মূল্যে বিক্রির অভিযোগ


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২৩, ৩:০০ অপরাহ্ণ / ২০
পলাশবাড়ীতে ইউপি’ রাস্তার গাছ গোপনে নিলাম দেখিয়ে নামমাত্র মূল্যে বিক্রির অভিযোগ

আশরাফুজ্জামান সরকার, গাইবান্ধাঃ-

 সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে নাম মাত্র মুল্যে গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান , গাছ রোপন কারী সমিতির নেতা ও বন বিভাগের কর্মকর্তাদের যোগসাজসে রাস্তার গাছ গোপনে নিলাম দেখিয়ে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে । জানা যায়, গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের খামার নড়াইল গৌরনিতাই সমবায় সমিতি কর্তৃক খামার নড়াইল কেসমত উল্লার বাড়ী হতে জদু সরকারের ব্রীজ পর্যন্ত রাস্তার দুই ধারে ইউক্লিপটার্স গাছ রোপন করা হয়। উক্ত রোপনকৃত গাছের মধ্যে ৫৪৮টি গাছ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান,সমিতির নেতা দ্বয় ও উপজেলা বন বিভাগের সাথে যোগসাজোস করে আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে প্রায় ৪০ লক্ষ টাকা মূল্যের গাছ মাত্র ১৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকায় মের্সাস মুন ফার্নিচারের নিকট বিক্রি করে বাকী টাকা ভাগ-বাটোয়ারা করেছেন মর্মে স্থানীয়রা অভিযোগ তুলেছেন। তবে বিক্রিত ও কর্তনকৃত গাছ গুলোতে বন বিভাগের কোন নাম্বার করা ছিলনা। আজ ১৬ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে গেলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই চেয়ারম্যানের বিভিন্ন অনিয়ম তুলে ধরে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবী জানান। প্রচার-প্রচারণা না করে গোপনে নিলাম ও স্বল্প মূল্যে গাছ বিক্রির ব্যাপারে জানতে চাইলে, ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাফিজ সাংবাদিকদের জানান, গাছের মূল্য নির্ধারণ করেছেন বন বিভাগ। আমরা ঢোল দিয়েছি। ৮ ফেব্রুয়ারী ইউনিয়ন পরিষদে নিলাম করা হয়েছে। তবে সরকারী নিয়ম অনুযায়ী গাছ বিক্রি করা হয়েছে। এ নিয়ে পরিষদের অন্যান্য সদস্যরাসহ এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে নানা মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুজ্জামান নয়ন জানান,বেতকাপা ইউনিয়নের একটি রাস্তার গাছ কর্তন এর অনুমতি প্রদান করা হয়েছে৷ গাছ কর্তনের বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি৷ উল্লেখ্য, গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলা একাধিক ইউনিয়নে জনপ্রতিনিধি,দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ও গাছ রোপনকারী সমিতির নেতাদের ম্যানেজ প্রক্রিয়ায় গোপন নিলামে নামমাত্র মুল্যে বিক্রি করে বার বার বিভিন্ন ইউপি রাস্তার গাছ গুলো কর্তন করে বৃক্ষ শূন্য অঞ্চলে পরিনত করছে৷