[gtranslate]

ধর্মপাশায় মুফতি আশরাফ আলীর বিরুদ্ধে,বলৎকার, দুর্নীতি,টাকা আত্মসাতের অভিযোগ 


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১০, ২০২৩, ১২:০৭ অপরাহ্ণ / ২৭
ধর্মপাশায় মুফতি আশরাফ আলীর বিরুদ্ধে,বলৎকার, দুর্নীতি,টাকা আত্মসাতের অভিযোগ 

ধর্মপাশা( সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ 

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের ক্বওমি মাদ্রাসার শিক্ষক মুফতি আশরাফ আলীর বিরুদ্ধে টাক আত্নসাত বলৎকারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ সোমবার সকালে ওই মাদ্রাসার সাবেক শিক্ষক সাজ্জাদুর রহমান খান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর এ লিখিত অভিযোগটি দায়ের করেছেন।জানা যায়, ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের অন্তর্গত জামিয়া দেওয়ানগঞ্জ নূরুল কুরআন ক্বওমি মাদ্রাসার মুফতি আশরাফ আলী ওই মাদ্রাসার একটি ছেলেকে বাসায় ডেকে নিয়ে বলৎকার করেছে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। অভিযোগে আরো জানা যায়, ওই মাদ্রাসার শিক্ষক মুফতি আশরাফ আলী এর দূর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার কারনে মাদ্রাসার শিক্ষক ও ছাত্র অভিভাবক অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। তার এই বলৎকারের ঘটনা দেখে প্রকাশ করে দেয়ায় শিক্ষক সাজ্জাদুর রহমান কে বিনা অপরাধে দীর্ঘদিনের বেতনভাতা পরিশোধ না করে জোরপূর্বক চাকরিচ্যুত করে চরম অপমান করে মাদ্রাসা থেকে বিদায় করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মুফতি আশরাফ আলী বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমার মান সম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য একটি মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শীতেষ চন্দ্র সরকার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। ## এম এম এ রেজা পহেল।