[gtranslate]

ধর্মপাশায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাক্ষর জালকরে টাকা উত্তোলন করায় পিআইও প্রজেস চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে আভিযোগ


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১৫, ২০২৩, ৭:৪৩ পূর্বাহ্ণ / ৩৬
ধর্মপাশায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাক্ষর জালকরে টাকা উত্তোলন করায় পিআইও প্রজেস চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে আভিযোগ

এম এম এ রেজা পহেল, ধর্মপাশা( সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের নবগঠিত মধ্যনগর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদ হাসান খানের সাক্ষর জাল করে ২০২২-২৩ অর্থবছরের টি আর, কাবিটার ১,৬২,৫০০/ এক লক্ষ বাষট্টি হাজার পাঁচশত টাকার একটি ভাউচারে নৌকা বানানোর প্রকল্পের সাক্ষর জাল করেন ধর্মপাশা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মধ্যনগর পিআইও অফিসের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা প্রজেস চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে ধর্মপাশা থানায় লিখিত অভিযোগ হয়েছে। মধ্যনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষে উপসহকারী প্রশাসনিক কর্মকর্তা আনন্দ মহন তালুকদার এই লিখিত অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, আমার স্যারের নির্দেশে, স্যারের পক্ষে আমি বাদি হয়ে ধর্মপাশা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করি। ধর্মপাশা উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ও মধ্যনগর পিআইও অফিসের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা প্রজেস চন্দ্র দাস বলেন, আমি সাক্ষর জাল করিনাই, প্রকল্প সভাপতির মাধ্যমে কমিটি দিলে ভাউচারের মাধ্যমে টাকা দেওয়া হবে। ধর্মপাশা থানার ওসি মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, এসংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি, এটি দুদক তদন্ত করছে। মধ্যনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদ হাসান খান বলেন, একটি ভাউচারে আমার সাক্ষর জাল করায় তার বিরুদ্ধে আইন গত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

## এম এম এ রেজা পহেল।