[gtranslate]

ঝিনাইগাতীতে জিসান এন্ড সুমাইয়া কন্সট্রাকশনের উদ্যোগে ভিক্ষুকদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : এপ্রিল ২০, ২০২৩, ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ / ২০
ঝিনাইগাতীতে জিসান এন্ড সুমাইয়া কন্সট্রাকশনের উদ্যোগে ভিক্ষুকদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

আল আমিন শেরপুর জেলা প্রতিনিধি :

শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ সারুয়ার হোসেন ২০/০৪/২৩ ইং রোজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১.০০ ঘটিকায় তাহার প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান জিসান এন্ড সুমাইয়া কন্সট্রাকশনের উদ্যোগে ভিক্ষুকদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন।এসব ঈদ সামগ্রীর মধ্যে ছিল সেমাই, চিনি, আতপ চাউল, দুধের প্যাকেট ও সাবান।  মোঃ সারোয়ার হোসেন বলেন, আমি সেনাবাহিনীতে বহুদিন চাকরিরত অবস্থায় বাহিরে ছিলাম। চাকরি থেকে আসার পর সাধারণ মানুষ সহ ভিক্ষুকদের কষ্ট দেখে আমার খুব কষ্ট হয়। তাদের পাশে দাঁড়াতে চাইলেও দাঁড়াতে পারি না। কারণ আমি তেমন কোনো বড় চাকরি করি নি। তারপরও রমজান উপলক্ষে আমি প্রায় ১৫০ জন ভিক্ষুকদের মাঝে আমার নিজস্ব অর্থায়নে জিসান এন্ড সুমাইয়া কনস্ট্রাকশন এর উদ্যোগে কিছু ঈদ সামগ্রী বিতরণ করি। যাতে করে ঈদের দিন হলেও ভিক্ষুকরা তাদের ছেলেমেয়েদের নিয়ে ভালোভাবে এক বেলা খেতে পারে। বাংলাদেশে অনেক স্বাবলম্বী মানুষ রয়েছে যদি তারা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ায় আমি মনে করি দেশের ভিক্ষুদের সংখ্যা আস্তে আস্তে কমে যাবে।  তিনি আরো বলেন আমি দেখি,স্কুলের শিক্ষার্থীরা যদি বৃত্তি পায় বা ভালো রেজাল্ট করে এলাকার সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ এবং দেশের সরকার তাদের বৃত্তিসহ বিভিন্ন সুবিধা প্রদান করে। কিন্তু মাদ্রাসা থেকে যারা হাফেজ হয়ে বের হয় তাদের কেউ ইচ্ছা করে সহযোগিতা করে না বাঁ পাশে দাঁড়ায় না। কিন্তু আমি আমার সামর্থ্য অনুযায়ী তাদের আর্থিক সুবিধা সহ বিভিন্ন সহযোগিতা করে থাকি বা করার জন্য চেষ্টা করি। তিনি আরো বলেন দেশে যারা সাবলম্বী আছেন তারা যদি সবাই তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী হাফেজ সহ সকল অভাবগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ায় দেশ থেকে অবশ্যই আস্তে আস্তে অভাব বা দারিদ্রতা উঠে যাবে বলে আমি আশা করি। আর তাতেই প্রতিষ্ঠিত হবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ।