[gtranslate]

জামালপুর জেলা শাখার পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন ই-প্রেস ক্লাব এর পুষ্পস্তবক অর্পণ-


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৩, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ / ২১
জামালপুর জেলা শাখার পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন ই-প্রেস ক্লাব এর পুষ্পস্তবক অর্পণ-

ডা. আজাদ খান, স্টাফ রিপোর্টার

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-১৪২৯ বঙ্গাব্দ উপলক্ষে আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন ই-প্রেস ক্লাব জামালপুর জেলা শাখার পক্ষ থেকে জামালপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মহান ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে জামালপুর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ফুলেল শ্রদ্ধা জানাতে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে। একুশের প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে জামালপুর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ই-প্রেস ক্লাবের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য ও ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রধান ডা. মো: শফিকুল ইসলাম আজাদ খান, ই-প্রেস ক্লাবের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো: তৌফিকুল ইসলাম সহ আরও অনেকেই। সে সময় জেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ বিভাগ, জেলা পরিষদ, জেলা আওয়ামী লীগ, সদর উপজেলা পরিষদ, জামালপুর পৌরসভা, জামালপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমী, সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম- মুক্তিযুদ্ধ ‘৭১, জামালপুর জেলা প্রেসক্লাব সহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন ভাষা শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করতে শহিদ বেদীতে নারী, পুরুষ ও শিশুর ঢল নামে জামালপুরে নবনির্মিত শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লীতে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন ই-প্রেস ক্লাবের উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সৈয়দ ফজলুল কবীর বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে মাতৃভাষার জন্য প্রাণ দেওয়ার এরূপ ঘটনা আর দ্বিতীয়টি নেই। তাদের অবদান ও আত্মত্যাগের ফলে যেমন রক্ষা পেয়েছে বাংলা ভাষার মর্যাদা, তেমনি রোপিত হয় বাঙালি জাতির হাজার বছরের স্বপ্ন-স্বাধীনতার চেতনা। বস্তত ১৯৫২ সালের ঐতিহাসিক পথ বেয়েই ১৯৭১ সালে বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আপোষহীন নেতৃত্বে আমাদের মহান স্বাধীনতা অর্জিত হয়। ভাষা আন্দোলনের মহান শহীদদের বাঙালি জাতি ও বাংলাভাষী জনগোষ্ঠী চিরদিন কৃতজ্ঞ চিত্তে স্মরণ করবে। ইউনেস্কো কর্তৃক এ দিনটিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতির মাধ্যমে দিনটি বিশ্বের সব জাতি গোষ্ঠীর নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় ঐক্য ও বিজয়ের প্রতীক হয়ে উঠেছে। অমর একুশের শিক্ষা হলো আমাদের আদর্শ,আমাদের ত্যাগ ও তিতিক্ষা। বাংলাদেশের অগনতি সূর্য-সন্তানেরা; যারা রাঙ্গিয়ে গেছে রাজ পথকে, গুড়িয়ে দিয়েছে শাসকের কালো হাতকে,উপেক্ষা করেছে রক্তিম শ্যেন-চক্ষুকে সেই অমর ভাইয়েরাই সোনার বাংলা বিনির্মাণে আমাদের অসীম প্রেরণার অফুরান উৎস। সাংবাদিকদের মুখপত্র ই-প্রেস নিউজ এর নির্বাহী সম্পাদক সাংবাদিক মাসুদ লস্কর বলেন, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হল ভাষাগত ও সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের প্রচারের পাশাপাশি মাতৃভাষা সংরক্ষণ ও প্রচারের গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য জাতিসংঘ কর্তৃক মনোনীত একটি দিন। মাতৃভাষাগুলি আমাদের পরিচয় গঠনে, সম্প্রদায়ের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করতে এবং পারস্পরিক বোঝাপড়া ও সম্মান বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ভাষা কেবল যোগাযোগের একটি মাধ্যম নয়; এটি আত্ম-প্রকাশের একটি হাতিয়ার, সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের বাহক এবং সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের একটি শক্তিশালী হাতিয়ার। দুর্ভাগ্যবশত, বিশ্বব্যাপী অনেক মাতৃভাষা বিলুপ্তি ও মারাত্মক হুমকির সম্মুখীন, বিশ্বায়ন, নগরায়ণ এবং ভাষা নীতির ফলে সংখ্যালঘুদের খরচে প্রভাবশালী ভাষাকে অগ্রাধিকার দেয়। ভাষাগত বৈচিত্র্যের এই ক্ষতি কেবল একটি সাংস্কৃতিক দু:খদায়ক ঘটনা নয়, টেকসই উন্নয়ন এবং সামাজিক সংহতির জন্যও হুমকি।