[gtranslate]

গঙ্গাচড়ায় এক তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : মার্চ ২০, ২০২৩, ৪:২০ পূর্বাহ্ণ / ২৩
গঙ্গাচড়ায় এক তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার

হীমেল কুমার মিত্র, স্টাফ রিপোর্টার 

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় এক তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় আলমগীর (৩২) নামে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। (১৯ মার্চ) রবিবার দুপুরে তাকে আদালতে নেয়া হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। গঙ্গাচড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। গ্রেফতার আলমগীর গঙ্গাচড়া উপজেলার মর্ণেয়া এলাকার হান্নান মিয়ার ছেলে। শনিবার (১৮ মার্চ) রাতে নগরীর সিও বাজার এলাকা থেকে রংপুর কোতোয়ালি থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাকে গ্রেফতার করেন অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের (রংপুর বিভাগ) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরিফুল আলম। মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১৪ মে গঙ্গাচড়া উপজেলার মর্ণেয়া ইউনিয়নের হাজীপাড়ায় এক তরুণীকে কৌশলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় একই এলাকার শামসুল আলমের ছেলে আবুজার। এরপর আবুজার ও তার বন্ধু একই এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুল করিম (২২), মতিয়ার রহমানের ছেলে নাজির হোসেন (২৫), মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আমিনুর রহমান (২২) ও হান্নান মিয়ার ছেলে আলমগীর মিলে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে। এর পর দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হত্যা করে বাড়ির পাশে ধনচে ক্ষেতে ওই তরুণীর মরদেহ রেখে পালিয়ে যায়। পরদিন ক্ষেত থেকে ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় তরুণীর বাবা গঙ্গাচড়া থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তৌহিদুল ইসলাম আবুজারসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। উল্লেখ্য, গত বছরের ২৪ নভেম্বর রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২-এর বিচারক রোকনুজ্জামান ৫ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আবুজার, আব্দুল করিম, নাজির হোসেন, আমিনুর রহমান আদালতে উপস্থিত থাকলেও আসামি আলমগীর পলাতক ছিলেন। গঙ্গাচড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল হোসেন জানান, আসামিকে গ্রেফতারের পর দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।