[gtranslate]

কুষ্টিয়ার মিরপুরে বাংলাদেশ স্কাউটস দিবস পালিত।।


প্রাচেস্টা নিউজ প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৮, ২০২৩, ২:২২ অপরাহ্ণ / ২৭
কুষ্টিয়ার মিরপুরে বাংলাদেশ স্কাউটস দিবস পালিত।।

জাহিদুল ইসলাম, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি:- ‘স্কাউটিং করবো, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়বো’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আজ শনিবার (৮ এপ্রিল) সকাল সাড়ে দশটায় মিরপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের স্কাউট সদস্য, অভিভাবক ও শুভানুধ্যায়ীরা আজ দিবসটি উদযাপন করেছে। বাংলাদেশ স্কাউটস এর কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা স্কাউটসের আয়োজনে এ উপলক্ষে পতাকা উত্তোলন, আলোচনা সভা ও র‍্যালির আয়োজন করা হয়। র‍্যালিটি উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে এক আলোচনা সভায় স্কাউটিং কার্যক্রমের তাৎপর্য তুলে ধরা হয়। উপজেলা স্কাউটসের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন মিরপুর উপজেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার হোসনে মোবারক, মিরপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি হাসানুর খান তাপস, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন নিশি, মাহাফুজুর রহমান স্টাফ রিপোটার দৈনিক সোনালী সময়, সাব্বির হোসাইন স্টাফ রিপোটার দৈনিক আজাদী কন্ঠ, রাশেদ খান মিলন স্টাফ রিপোর্টার সময়ের কাগজ। চিথলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহেল বাকী, ছাতিয়ান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল আহাদ, আমলা জাহানারা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এনামুল ইসলাম, মিরপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোকনুজ্জামান, উপজেলা স্কাউটসের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, উপজেলা স্কাউট লিডার রেজাউল করিম, কোষাধ্যক্ষ কুটিশ্বর পাল প্রমুখ। এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দুই শতাধিক কাব ও স্কাউটরা অংশ নেয়। এই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া ও গণমাধ্যম কর্মীরা।স্কাউটিং বিশ্বব্যাপী একটি স্বেচ্ছাসেবী ও শিক্ষামূলক যুব আন্দোলন। শিশু, কিশোর ও যুবকদের শারীরিক, মানসিক, আধ্যাত্মিক, সামাজিক ও বুদ্ধিভিত্তিক উন্নয়ন সাধনের মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীল, সৎ, চরিত্রবান, দেশপ্রেমিক ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলাই স্কাউট আন্দোলনের অন্যতম উদ্দেশ্য। ১৯০৭ খ্রিষ্টাব্দে ব্রিটেনের ব্রাউন্সি দ্বীপে স্কাউট আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা লর্ড ব্যাডেন পাওয়েল স্কাউটিং কার্যক্রমের সূচনা করেছিলেন। বর্তমান বিশ্বের ১৭৩টি দেশের ৪ কোটি ৩০ লাখ শিশু, কিশোর ও যুবকরা স্কাউট প্রতিজ্ঞা গ্রহণ করে আত্মনির্ভরশীল, পরোপকারী, সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলেছেন।